আল্লাহ যা করেন ভালোর জন্যই করেন

1 minute read

এক রাজার এক মন্ত্রী ছিলো যে সবকিছুর ক্ষেত্রে বলতো “আল্লাহ যা করেন ভালোর জন্যই করেন”।

একবার রাজার হাত কেটে গেলো এবং মন্ত্রী ঐ একই কথা বললো “আল্লাহ যা করেন ভালোর জন্যই করেন।”

মন্ত্রীর এই কথা শুনে রাজা এতোটাই রাগান্বিত হলো যে তাকে বন্দি করে কারাগারে পাঠালো।

নিজের কারাগারের ফায়সালায়ও মন্ত্রীর সেই একই কথা “আল্লাহ যা করেন ভালোর জন্যই করেন।”

রাজা এবং মন্ত্রী সবসময় একসাথে জংগলে শিকারে বের হতো।

কিন্তু এবার রাজা একা গেলেন কারণ মন্ত্রী তখন কারাগারে।

শিকার করার সময় হঠাৎ জংলি লোকেরা এসে রাজাকে ধরে নিয়ে গেলো এবং তাকে তাদের দেবতার জন্য বলি দিতে মনস্থির করলো।

এক পর্যায়ে তারা দেখলো রাজার হাত কাটা এবং এই ধরনের ব্যক্তিকে তারা বলির অযোগ্য মনে করে। ফলে তারা রাজাকে ছেড়ে দিলো।

সুবহান আল্লাহ।

রাজা তখন বুঝতে পারলো যে তার হাত কাটাই তার জন্য কল্যাণকর ছিলো।

রাজা তখন মন্ত্রীকে ছেড়ে দিলো এবং জিজ্ঞেস করলো, “আমার হাত কাটা নাহয় ভালোর জন্য ছিলো কিন্তু তোমার কারাবন্দী হওয়া কিভাবে ভালো ছিলো”?

তখন মন্ত্রী বললো, সবসময় তো শিকারে আপনি আর আমি বের হই অথচ এবার আপনি একা ছিলেন।

যদি আমিও আপনার সাথে থাকতাম তাহলে আপনার জায়গায় আমি বলি হয়ে যেতাম কারণ আমার হাত কাটা ছিলো না।

অতএব কারাগারে থাকাই আমার জন্য কল্যাণের ছিলো। সুতরাং আল্লাহ যা করেন ভালোর জন্যই করেন।

আমরা বুঝি বা না বুঝি প্রতিটা ঘটে যাওয়া ঘটনাই আমাদের জন্য কল্যাণকর যদিও আপাত দৃষ্টিতে তা আমাদের জন্য ক্ষতি মনে হয়।

  • সংগৃহিত

  • গল্পের সত্যতা আল্লাহ ভালো জানেন তবে শিক্ষনীয়

Comments